মোট প্রদর্শন : 214 Views

বাংলাদেশ কিন্তু ম্যাচ থেকে এখনও পুরোপুরি হারিয়ে যায়নি: আজহারউদ্দিন

bbcvসাবেক ভারতীয় ক্রিকেট অধিনায়ক মহম্মদ আজহারউদ্দিনের সাথে কথা বলছেন বিবিসি বাংলার শুভজ্যোতি ঘোষ

হায়দ্রাবাদ টেস্টে বাংলাদেশ যতই কোণঠাসা অবস্থায় থাকুক না কেন, ভারতের সাবেক ক্রিকেট অধিনায়ক মহম্মদ আজহারউদ্দিন মনে করছেন নিজেদের ঠিকমতো প্রয়োগ করতে পারলে বাংলাদেশ এখনও এই টেস্টে লড়াই দেওয়ার ক্ষমতা রাখে।

বেটিং কেলেঙ্কারি যতই তাকে কালিমালিপ্ত করুক, আজও হায়দ্রাবাদ ক্রিকেটের আইকন বলতে যাকে বোঝায় তিনি মহম্মদ আজহারউদ্দিন – সম্ভবত ভারতীয় ক্রিকেটের সর্বকালের সেরা স্টাইলিশ ব্যাটসম্যান। কিছুদিন আগে হায়দ্রাবাদ ক্রিকেট সংস্থার প্রেসিডেন্ট পদে লড়তে চাইলেও তার মনোনয়ন বাতিল হয়ে যায় – আর আজ রাজীব গান্ধী আন্তর্জাতিক স্টেডিয়ামে সেই প্রেসিডেন্টের ঘরে বসেই বিবিসিকে সাক্ষাৎকার দিলেন তিনি।

বললেন, বাংলাদেশ কিন্তু ম্যাচ থেকে এখনও পুরোপুরি হারিয়ে যায়নি।

আজহার বলছেন, “বাংলাদেশ যদি নিজেদের ঠিকমতো প্রয়োগ করতে না-পারে তাহলে এই ম্যাচ হয়তো বড়জোর চারদিন গড়াবে। বাংলাদেশকে নিজেদের তাই প্রয়োগ করতেই হবে – আর আমার ধারণা তাদের সেই ক্ষমতাও আছে। আর এই দুদিন তারা কিন্তু খুব একটা খারাপ খেলেওনি, যদিও স্কোরবোর্ড সে কথা বলছে না।”

আজহার এ কথা বলছেন, কারণ তার মতে এই বাংলাদেশ দলটায় বেশ কয়েকজন দারুণ প্রতিভাবান ক্রিকেটার আছে।

প্রথমেই যেমন তিনি বেছে নিচ্ছেন মাহমুদউল্লাহ আর সাব্বির রহমানকে। “তা ছাড়া তামিম ইকবাল খুব ভাল ক্রিকেটার, সাকিব আর মুশফিকুর তো ভীষণই অভিজ্ঞ। ” ইংল্যান্ডের বিরুদ্ধে যে তরুণ ছেলেটি (মেহেদি হাসান মিরাজ) অনেকগুলো উইকেট নিয়েছে সেও আজহারের নজর কেড়েছে।

bbcvvহায়দ্রাবাদ টেস্টের একটি দৃশ্য

প্রতিভার ছড়াছড়ি থাকলেও লম্বা ফরমেটে বেশি ম্যাচ খেলার সুযোগ হয় না বলেই টেস্টে বাংলাদেশকে ভুগতে হচ্ছে বলে আজহারউদ্দিনের ধারণা।

“ভাল টেস্ট প্লেয়িং দেশ হয়ে উঠতে গেলে আপনাকে অনেক বেশি ম্যাচ খেলতে হবে। দুদিন বা তিনদিনের ম্যাচ, এমন কী চারদিনের ম্যাচও। বাংলাদেশের বাইরে বিভিন্ন দেশে যদি ওরা আরও বেশি করে টেস্ট ম্যাচ খেলতে থাকে, তাহলে ফারাক হতে বাধ্য।”

তবে সম্প্রতি দুনিয়ার সব দেশে খেলে বেড়ালেও বাংলাদেশ কেন এতদিন ভারতে আসেনি, এই বিষয়টা অবাক করেছে আজহারকেও।

“আমি তো বুঝতেই পারছি না কেন ভারতে খেলতে আসতে তাদের সতেরো বছর লেগে গেল। তবে শেষ পর্যন্ত আমি খুব খুশি যে ভারতে তাদের প্রথম টেস্টটা হায়দ্রাবাদেই হচ্ছে। এটা আয়োজন করতে পারাটা খুব গর্বের ব্যাপার।”

নিজের প্রিয় শহর হায়দ্রাবাদ যে ভারতের অধিনায়ক ভিরাট কোহলির রেকর্ড-ভাঙা ডাবল সেঞ্চুরিও দেখতে পেল, সেটা আজহারের আর একটা খুশির কারণ।

কোহলির ইনিংস পুরোটা দেখতে পাননি তিনি, তবে যেটুকু দেখেছেন সেটুকুই দারুণ লেগেছে তার। এখন টেস্টের বাকি সময়টা বাংলাদেশও ভাল লড়াই দিয়ে ম্যাচটাকে আকর্ষণীয় অবস্থায় নিয়ে যাক – সেটাই চাইছেন হায়দ্রাবাদের আজ্জু মিঁয়া।